কঠোর লকডাউনেও বৃদ্ধি পাচ্ছে কলারোয়ায় করোনা সংক্রমন

12
বিশেষ প্রতিনিধি: চলমান কঠোর লকডাউনের মধ্যেও কলারোয়ায় করোনা সংক্রমন বৃদ্ধি থামানো যাচ্ছে না।  নতুন শনাক্ত হয়েছেন আরো ১৫জন ।
এদিকে সংক্রমন ঠেকাতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে র‌্যাপিড এন্টিজেন কিটস দিয়ে পরীক্ষা শুরু হলেও সাধারণ মানুষের মধ্যে করোনা পরীক্ষা করতে ব্যাপক অনাগ্রহের রয়েছে এমনটি জানিয়েছেন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা।
বুধবার (১৬ জুন) উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডা. জিয়াউর রহমান জানান, নতুন  শনাক্তদের মধ্যে কলারোয়া হাসপাতালে র‌্যাপিড এন্টিজেন কিটস দিয়ে ৭ জনের করোনা পরীক্ষা করে ৩জন সনাক্ত হয়েছেন। এছাড়া সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষায় নতুন ১০জন ও সম্প্রতি করোনা আক্রান্ত ২জনের ফলোআপ পরীক্ষায়ও  করোনা শনাক্ত হয়েছেন।
করোনা শনাক্ত নতুন ব্যক্তিরা হলেন,  র‌্যাপিড এন্টিজেন কিটস টেস্টে পৌরসভার তুলশীডাঙ্গা গ্রামের রফিকুল ইসলাম (৩৪), হেলাতলা ইউনিয়নের খলশী গ্রামের হোসনেআরা (৩০) ও সোনাবাড়িয়া গ্রামের মিতালী হালদার (২৮)। সাতক্ষীরা পিসিআর ল্যাবে সনাক্ত  পৌরসভার মুরারীকাটি গ্রামের মুত্তাফিক বিল্লাহ (৩৩), তুলশীডাঙ্গা এলাকার সাবিনা আক্তার (৩২), সোনাবাড়িয়া ইউনিয়নের শ্রীরামপুর গ্রামের সেলিনা খাতুন (৩৫), কুশোডাঙ্গা ইউনিয়নের রায়টা গ্রামের সুন্দরী খাতুন (৬১), লাঙ্গলঝাড়া ইউনিয়নের আফরোজা (৩৫), কয়লা ইউনিয়নের আলাইপুর গ্রামের সালমা (২৭), একই ইউনিয়নের কুমারনল গ্রামের আসমা খাতুন (৩০), কেঁড়াগাছি ইউনিয়নের কাকডাঙ্গা গ্রামের সাওদাত সরদার (৬৮), কলারোয়ার আতাউর (৩০) ও আসমা খাতুন (৩৫)। এছাড়া পিসিআর ল্যাবে ফলোআপ পরীক্ষায় পৌরসভার  ঝিকরা গ্রামের সিরাজুল হক (৬২) এবং সোনাবাড়িয়া ইউনিয়নের বেলী গ্রামের আল নাজিব মাহফুজ (১৭)।