প্রতাপনগরে মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ বেড়িবাঁধ ভাঙ্গন আতংক !

0

মাসুম, প্রতাপনগর,আশাশুনি,প্রতিনিধিঃ প্রতাপনগরে মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ বেড়িবাঁধ ভাঙ্গন আতংকে আতংকিত এলাকাবাসী ! জরুরী ভিত্তিতে সংস্কার সময়ের দাবি। পানি উন্নয়ন বোর্ড দেখবেন কি ? হ্যা বলছিলাম মাদার বাড়িয়া ঝাপালিয়া খেয়াঘাট এলাকার বেড়িবাঁধের দুরাবস্থার কথা। পানি উন্নয়ন বোর্ড ও স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জানা যায় ষাটের দশকের পর এই বেড়িবাঁধ টি সংস্কার করা হয়নি।

বেড়িবাঁধ এলাকায় যেয়ে দেখা যায় বাঁধ টি প্রতিবছরই বর্ষা ও খোলপেটুয়া নদীর তুফানের আঘাতে আঘাতে ক্ষতবিক্ষত হয়েছে। এবং বর্ষার মৌসুমে প্রবল বৃষ্টিপাতে বেড়িবাঁধটি ধুয়ে ধুয়ে খুবই নাজুক ও মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় বিরাজমান আছে। ঝুঁকিপূর্ণ বেড়িবাঁধ এতটাই নাজুক যে দেখে মনে হয় এ যে দেখার কেউ নেই। প্রতাপনগর হরিশ খালির দক্ষিণ পশ্চিম অংশের স্লুইস গেট থেকে প্রতাপনগর মাদার বাড়িয়া ঝাপালিয়া খেয়াঘাট গামী প্রায় ৭০০ ফুট বেড়িবাঁধের অবস্থার এমনই নাজুক যে ঐ বাঁধ দিয়ে এলাকাবাসীর চলাচলও অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।

কোথাও এক ফুট কোথাও দুই ফুট বাঁধ রয়েছে। মহা প্রলয়ঙ্কারী জ্বলোচ্ছাস ঘুর্নিঝড় আম্ফান থেকে প্রতাপনগর ইউনিয়নটি দীর্ঘ প্রায় দশ মাস কপোতাক্ষ ও খোলপেটুয়া নদীর জোয়ার ভাটায় নিমজ্জিত ছিল। তিন মাস না যেতেই আবারও ঘুর্নিঝড় ইয়াস-যশ প্রভাবে প্রতাপনগরের মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়ে আজও খোলপেটুয়া নদীর জোয়ার ভাটায় নিমজ্জিত প্রতাপনগর অঞ্চল। মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ বেড়িবাঁধ নির্মাণ করার তাগিদে পানি উন্নয়ন বোর্ড কে অবহিত করা হয় এবং ঝুঁকিপূর্ণ বেড়িবাঁধ নির্মাণের জন্য দৈনিক দৃষ্টিপাত পত্রিকাসহ বিভিন্ন গণমাধ্যম ইলেকট্রনিক প্রিন্ট মিডিয়ায় ফলাও করে সংবাদ প্রকাশ হলেও সময় মত ঝুঁকিপূর্ণ বেড়িবাঁধ সংস্কার করেননি পানি উন্নয়ন বোর্ড তথা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। যার প্রেক্ষিতে আজও খোলপেটুয়া নদীর জোয়ার ভাটায় ডুবে আছে বন্যতলা সহ প্রতাপনগর ইউনিয়নের প্রায় চার পাঁচ হাজার মানুষ।

এলাকাবাসীর উদ্যোগে বিকল্প রিং বাঁধের মাধ্যমে প্লাবিত এলাকার সত্তর ভাগ এলাকা জোয়ার ভাটা মুক্ত করা হলেও বিকল্প রিং ভেঙ্গে যাওয়ার আতংকে আতংকিত এলাকাবাসী। সুতরাং সময়ের এক অসময়ের দশ প্রবাদের বিশ্লিশন গুরুত্ব দিয়ে নতুন করে বেড়িবাঁধ ভাঙ্গন আতংক থেকে রক্ষা করতে মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ বেড়িবাঁধ টি সংস্কার করা যথযথ সময়ের যুক্তিক দাবি রাখে। এহেনো পরিস্থিতি উত্তরণে জরুরী ভিত্তিতে পানি উন্নয়ন বোর্ড তথা উর্দ্ধতন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা বানভাসি অসহায় ভুক্তভুগি প্রতাপনগর এলাকাবাসীর।