সুন্দরবন কেন্দ্রিক কর্মজীবী নারীদের পাশে দাড়াবে ‘পুনাক’: জীশান মীর্জা

4

নিজস্ব প্রতিনিধি: সমাজের পিছিয়ে পড়া অসহায় নারীদের সেবা প্রদান করাই আমাদের লক্ষ্য উল্লেখ করে পুলিশ নারী কল্যাণ সমিতির সভানেত্রী জীশান মীর্জা বলেছেন, আমাদের কাজ প্রতিবন্ধী, দরিদ্র, তৃতীয় লিঙ্গের সদস্য, রোগগ্রস্ত নারীসহ সকলকে মানবিক সেবা প্রদান। তাদেরকে লেখাপড়ার সুযোগ করে দেওয়াও আমাদের লক্ষ্য।

শনিবার (৮ জানুয়ারি) বিকালে সাতক্ষীরা পুলিশ লাইনস মিলনায়তনে সাংবাদিকদের অংশগ্রহণে ‘পুনাক’ আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, করোনাকালে আমরা সেবা দিয়েছি। বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসার অভাবে পড়ে থাকা মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে তাদের চিকিৎসা করিয়ে যাচ্ছি। এমনকি তাদের পুনর্বাসনেরও ব্যবস্থা করা হয়েছে। বন্যপ্রাণী ও পশুপাখি সংরক্ষণে আমরা সহায়তা দিয়ে যাচ্ছি। এছাড়াও সুন্দরবন কেন্দ্রিক কর্মজীবী নারীদের সহায়তা করাও আমাদের লক্ষ্য।

তিনি উল্লেখ করেন, সুন্দরবন এলাকায় বসবাসরত অগণিত বাঘবিধবার আয়বর্ধক কর্মসংস্থান, তাদেরকে আর্থিক ও অন্যান্য সহায়তা প্রদান এবং সুপেয় পানির ব্যবস্থা করার উদ্যোগও রয়েছে আমাদের। উপকূলীয় এলাকায় গর্ভধারিণী মায়েদের সন্তান প্রসবে সহায়তার জন্য সেখানে ধাত্রী প্রশিক্ষণ ও ওষুধপত্র এবং চিকিৎসা বিষয়ক যন্ত্রপাতি সরবরাহের ব্যবস্থা করা হবে। একইসাথে সুন্দরবনের মধু এবং কেওড়ার আচার তৈরীর মাধ্যমে নারীদের কর্মসংস্থানেরও ব্যবস্থা করা হবে।

সাতক্ষীরা জেলা পুনাক সভানেত্রী নাদিয়া আফরোজের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় সূচনা বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান।

সভায় আরও বক্তব্য রাখেন পুনাকের সহসভানেত্রী নাসিম আমিন, দিলরুবা খুরশীদ, ফারজানা জামিল, ফরজানা কবির, প্রথমা রহমান সিদ্দিকি, সৈয়দা মেহের আফরোজ, তৌহিদা ইসলাম নুপুর, ওয়াহিদা ওয়াহাব প্রমূখ।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন পুনাক সভানেত্রী জীশান মীর্জার মা লুৎফুন্নেছা হক ও অতিরিক্ত ডিআইজি রখফার সুলতানা খানম।

মতবিনিময় সভায় সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন পুনাক সভানেত্রী। পরে তিনি শীতার্ত নারীদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেন।