এই স্টেডিয়ামেই শুরু হচ্ছে ভারত-ইংল্যান্ড গোলাপি টেস্ট

0
10

স্পোর্টস ডেস্ক: গোলাপি বলের টেস্ট- এই কথাটা শুনলেই কেন যেন ভারতীয়দের হৃদয়টা ধুকপুঁক করতে শুরু করে। অ্যাডিলেড এসে দাঁড়িয়ে যায় সামনে। অস্ট্রেলিয়া থেকে ২-১ ব্যবধানে টেস্ট সিরিজ জিতে আসলেও অ্যাডিলেডে প্রথম টেস্ট ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল গোলাপি বলে, দিবা-রাত্রিতে। সেই ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসেই ৩৬ রানে অলআউট হয়েছিল বিরাট কোহলিরা।সেই গোলাপি বলের টেস্ট ম্যাচ খেলার জন্য আবারও মাঠে নামতে যাচ্ছে ভারত। প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড। খেলা অনুষ্ঠিত হবে, বিশ্বের সবচেয়ে দৃষ্টিনন্দন এবং বড় স্টেডিয়াম, আহমেদাবাদের মোতেরায়।ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথমটিতে গো-হারা হারলেও পরেরটিতে আবার বড় ব্যবধানে জিতে কামব্যাক করেছে বিরাট কোহলি অ্যান্ড কোং। এবার তৃতীয় টেস্ট। সিরিজে এগিয়ে যাওয়ার মিশন ভারত কিংবা ইংল্যান্ডের।আহমেদাবাদের মোতেরা স্টেডিয়ামটি নব নির্মিত। বছরখানেক আগে মোতেরার এই স্টেডিয়ামটি উদ্বোধন করেছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের সদ্য সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সঙ্গে ছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ২০২০ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি নতুন উদ্বোধন হওয়ার পর কিন্তু আন্তর্জাতিক ক্রিকেট শুরু হয়নি এই মাঠে।ঠিক এক বছর পর আবারও মোতেরার সরদার প্যাটেল স্টেডিয়ামে শুরু হতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। গোলাপি বলের টেস্ট দিয়ে অভিষেক ঘটতে যাচ্ছে বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ এই স্টেডিয়ামটির। স্টেডিয়ামটির সবমিলিয়ে ধারণক্ষমতা ১ লাখ ১০ হাজার। তবে, কোহলিদের জন্য খবর হচ্ছে, অর্ধেক দর্শককে প্রবেশের অনুমতি দেয়া হচ্ছে মোতেরা স্টেডিয়ামে।মোতেরা স্টেডিয়ামের উইকেট কেমন হবে, তা নিয়ে অবশ্য দ্বিধা-দ্বন্দ্ব রয়েছে ভারত এবং ইংল্যান্ড টিম ম্যানেজমেন্টের মধ্যে। বল ঘূরবে নাকি ঘূরবে না, তা নিয়ে চিন্তায় আপাতত ইংল্যান্ডই বেশি। এর আগে দুটি গোলাপি বলে দিবা-রাত্রির টেস্ট খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে ভারতীয় দলের। ঘরের মাঠে একটি, অপরটি অস্ট্রেলিয়া সফরে। ইংল্যান্ডের তিনটি গোলাপি বলে টেস্ট খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে। এখনও পর্যন্ত সারা বিশ্বে মোট ১৫টি দিবা-রাত্রির টেস্ট হয়েছে।গোলাপি বলের টেস্ট নিয়ে বিভিন্ন ক্রিকেটারের ভিন্ন ভিন্ন মতামত। টিম ইন্ডিয়ার তিন নম্বর ব্যাটসম্যান চেতেশ্বর পূজারা গোলাপি বলে দিবা-রাত্রির টেস্টের চেয়ে দিনের আলোয় লাল বলে খেলতে চান। অসি পেসার মিচেল স্টার্কের আবার গোলাপি বলের সুইং বেশি পছন্দের। বোলারদের কাছে গোলাপি বলে টেস্ট খেলা পছন্দের হলেও ব্যাটসম্যানদের জন্য তা মোটেই পছন্দের নয়।১৯৮০ সালের দিকে প্রথম তৈরি করা হয় আহমেদাবাদের মোতেরা স্টেডিয়াম। তবে সম্প্রতি এই স্টেডিয়ামের ব্যাপক সংস্কার সাধন করা হয়। যে কারণে স্টেডিয়ামের দর্শকাসন বাড়িয়ে করা হয় বিশ্বের সবচেয়ে বড় স্টেডিয়াম হিসেবে। এবার এই স্টেডিয়ামটি পদার্পন করতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বিস্তারিত আসছে…

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে