সাতক্ষীরায় নকশা অনুযায়ী প্রাণসায়র খাল পুনঃখননের দাবিতে মানববন্ধন

7

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: সাতক্ষীরা শহরের মাঝ দিয়ে প্রবাহিত প্রাণসায়র খাল নকশা অনুযায়ী পুনঃখনন, খালখননের কর্দমাক্ত মাটি বহনের নামে রাস্তাঘাট নষ্ট না করা ও বর্ষার আগে মশা নিধনে কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণসহ বিভিন্ন দাবীতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। নাগরিক আন্দোলন মঞ্চ সাতক্ষীরার আয়োজনে বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে শহরে প্রাণসায়র খালের ধারে এই মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।নাগরিক মঞ্চের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যক্ষ সুভাষ সরকারের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান মাসুমের সঞ্চালনায় প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, সিনিয়র সাংবাদিক কল্যাণ ব্যানার্জি, জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. ওসমান গণি, সাংগঠনিক সম্পাদক আতাউর রহমান গোলদার, নাগরিক আনোদলন মঞ্চের নেতা রাশেদুজ্জামান রাশি, মেহেদী আলী সুজয়, এম বেলাল হোসাইন, জাহিদা জাহান মৌ, সদর মৎস্যজীবী সমিতির সভাপতি শিহাব উদ্দিন, সাতক্ষীরা নাগরিক আন্দোলন মঞ্চের ৮নং ওয়ার্ড শাখার সভাপতি ডা: শফিকুল ইসলাম প্রমুখ।মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, প্রাণসায়র খাল সাতক্ষীরাবাসীর প্রাণ। সাতক্ষীরাবাসীর দীর্ঘদিনের দাবির প্রেক্ষিতে খালটি খননের জন্য প্রয়োজনীয় বরাদ্দ আসে। খাল খনন প্রক্রিয়া শুরুর আগে আমরা দাবি জানিয়েছিলাম যেন খালটি যথাযথভাবে খনন করা হয়। অথচ আমরা দেখলাম খনন শুরু হওয়ার পর খালটি পূর্বের থেকে ছোট হয়ে একেবারে ছোট একটি ড্রেনে পরিণত হচ্ছে। এই খনন তো আমরা প্রত্যাশা করিনি। সরকার যে মহতী উদ্যোগ নিয়ে খাল খননের জন্য বরাদ্দ দিয়েছিলেন। তা কার্য্যত ব্যাহত হচ্ছে। খালটি খননের জন্য যাদের তদারকি করার কথা ছিলো। তারা কোন খবর রাখেন কি না সেটি সাতক্ষীরাবাসী জানে না। যদি রাখতো তাহলে এই ভাবে যেনতেনভাবে খালটি খনন করা হতো না।বক্তারা আরো বলেন, খালটি সম্পূর্ণ ডিজাইন অনুযায়ী খননের লক্ষ্যে খালের দুইপাড়ে থাকা ব্যবসায়ীদের দোকানপাট ভেঙ্গে লক্ষ লক্ষ টাকার ক্ষতি করা হয়েছে। অথচ বাস্তবে ডিজাইন অনুযায়ি কাজ হচ্ছে না।সম্পূর্ণ না শুকিয়ে পানির মধ্যে খাল খনন করে যে মাটি তোলা হচ্ছে এবং তা বহন করতে গিয়ে সমগ্র শহর ধূলোবালি ও কাদামাটির শহরে পরিণত করা হয়েছে। সাতক্ষীরার প্রায় সর্বত্র নিয়ন্ত্রণহীনভাবে ট্রলিতে করে মাটি বহন করে রাস্তাঘাট চলাচলের অনুপযোগী করা হয়েছে। যে কারনে বর্তমানে সাতক্ষীরা শহরের চলাচলের কোন পরিবেশ নেই। বক্তারা অবিলম্বে সম্পূর্ণ ডিজাইন অনুযায়ী খালটি পূন:খনন এবং রাস্তা সাধারণ মানুষের চলাচলের সুযোগ সৃষ্টি করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। বক্তারা আরও বলেন, বর্ষা আসছে, বাড়তে পারে ডেঙ্গুর প্রকোপ। অবলিম্বে মশা নিধনে কার্যকর ব্যবস্থা নেয়ারও দাবি জানান। বিস্তারিত আসছে…