২৫ লাখ টাকায় বেঁচে যেতে পারে একটি জীবন

3

ন্যাশনাল ডেস্ক: ফুরকানুল ইসলাম ৪০, পরিকল্পনা কমিশনের আর্থ সামাজিক অবকাঠামো বিভাগের ব্যক্তিগত কর্মকর্তা। দীর্ঘদিন ধরে তিনি কিডনি রোগে আক্রান্ত।তার শারীরিক অবস্থা বর্তমানে সংকটাপূর্ণ। সপ্তাহে তিনদিন তাকে ডায়ালাইসিস করতে হয়। কিডনি ডায়ালাইসিসের মাধ্যমে তার শরীরের রক্ত পরিশোধন করা হয় এবং এর মাধ্যমে তিনি বেঁচে আছেন। কিন্তু এভাবে বেঁচে থাকাটা তার জন্য কাম্য নয়। তাঁর চলাফেরা সীমিত, তিনি কাজ করতে পারেন না, দূরে কোথাও ঘুরতে যেতে পারেন না এমনকি খাওয়া-দাওয়াও খুব সীমিত। সবসময় ক্লান্ত অনুভব করেন তিনি।ব্যক্তিগত কর্মকর্তা ফুরকানুল ইসলাম জরুরি ভিত্তিতে তার কিডনি প্রতিস্থাপনের জন্য আনুমানিক ২৫ লাখ টাকার প্রয়োজন। তিনি সরকারি যে বেতন পান সব টাকাই ওষুধ ও চিকিৎসক বাবদ খরচ হয়ে যায়। এছাড়া জমানো টাকাও শেষ করে ফেলেছেন তিনি। ফুরকানুল বাংলানিউজকে বলেন, আমার ২৫ লাখ টাকা লাগবে কিডনি প্রতিস্থাপনের জন্য। জমা যা কিছু ছিল সবই শেষ করে ফেলেছি। এখন বিদেশে গিয়ে কিডনি প্রতিস্থাপন করতে হবে লাগবে ২৫ লাখ টাকা। দুটো কিডনি একেবারে শেষ হয়ে গেছে। দ্রুত কিডনি প্রতিস্থাপন দরকার। মানবিক আর্থিক সাহায্যের জন্য সংশ্লিষ্টদের কাছে সহযোগিতা চায়। আমার জীবন রক্ষার্থে সামর্থ্য অনুযায়ী মানবিক আর্থিক সাহায্যের জন্য পরিকল্পনা বিভাগ ও কমিশন কর্মকর্তা কর্মচারী কল্যাণ সমিতির পক্ষ থেকে আকুল আবেদনও করেছি।

তিনি আরও বলেন, আমার সঞ্চয়ী হিসাব নম্বর : ০১০০০৬৩৪৯৭০৭৪, জনতা ব্যাংক লিমিটেড , শেরে বাংলা নগর কর্পোরেট শাখা , ঢাকা। বিকাশ একাউন্ট নম্বর : ০১৯৮২৫৭৩০৯৩।