সাতক্ষীরার মৃগীডাঙ্গা গ্রামের নুরুল আমিন ফনুর অত্যাচার নির্যাতন থেকে রক্ষা পেতে এক দোকানির সংবাদ সম্মেলন

8

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে সদর উপজেলার মৃগীডাঙ্গা গ্রামের
নুরুল আমিন ফনুর দেয়া বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছেন একই গ্রামের মোঃ
আব্দুর রশিদ সরদারের ছেলে মোঃ নাজমুল হোসেন (মিঠু)। শুক্রবার দুপুরে
সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই প্রতিবাদ জানান।
লিখিত বক্তব্যে নাজমুল হোসেন মিঠু বলেন, আমি বৈকারী ইউনিয়নের ৭ নং
ওয়ার্ডের জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমানে মুক্তিযোদ্ধার
স্বপক্ষের শক্তির সঙ্গে প্রত্যক্ষভাবে কাজ করে যাচ্ছি। ২০১৩ সালে
জামায়াত-শিবিরের তান্ডবের সময়ও আমি স্বাধীনতার স্বপক্ষের দলের সাথে ছিলাম
এবং এখনও কাজ করে যাচ্ছি। মৃগীডাঙ্গা গ্রামের মৃত জনাব আলীর ছেলে নুরুল
আমিন ফনুর সাথে জমাজমি, পুকুর ও ঘের নিয়ে ২০১০ সাল থেকে আমার বিরোধ চলে
আসছিল। ২০১৫ সালের শেষের দিকে নুরুল আমিন ফনু জোরপূর্বক আমার পুকুরে মাছ
ধরতে যায়। এসময় বাধা দিলে সে ক্ষিপ্ত হয়ে আমার ও পরিবারের সদস্যদের নামে
বিভিন্ন জায়গায় অভিযোগ করে। কিন্তু তার কোন অভিযোগ তদন্তে প্রমানিত হয়নি।
তিনি আরো বলেন, মৃগীডাঙ্গা বাজারে আমার একাধিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে।
ফুন অনেক সময় আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে বাকিতে মালামাল ক্রয় করে।
কিন্তু বছর শেষে হালখাতার সময় কয়েকবার চিঠি দিলেও সে বাকি টাকা পরিশোধ
করে না। বকেয়া টাকা চাইলে আমাকে বিভিন্ন মামলায় ফাসিয়ে দেয়ার হুমকি দেয়
ফনু। এভাবে বিভিন্ন দোকান থেকে বাকিতে মালামাল কিনে সে টাকা দেয় না। কেউ
কিছু বললে তাকে মামলায় ফাসিয়ে দেয়ার হুমকি দেয়। বিগত হালখাতার আগে
মৃগীডাঙ্গা বাজারে আমি বকেয়া টাকা চাইলে সে দিতে অস্বীকার করে। এনিয়ে তার
সাথে আমার বাকবিতন্ডা হয় এবং আমাকে প্রকাশ্যে দেখে নেয়ার হুমকি দেয়। এর
পর থেকে ফনু আমার ও পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন চক্রান্তে লিপ্ত
রয়েছে।নাজমুল হোসেন মিঠু বলেন, আমার একটি মাছের ঘের রয়েছে। ২০০১ সাল থেকে
অদ্যবধি আমি সেখানে মাছ চাষ করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছি। গত ১০
ফেব্রুয়ারি নুরুল আমিন ফনু জোর পূর্বক আমার ঘের দখল করতে গেলে আমি সদর
থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করি। এঘটনায় ফনু আমার উপর আরো ক্ষিপ্ত হয়ে
বিভিন্ন স্থানে হুমকি প্রদান করছে। এরই অংশ হিসাবে গত ৩ মার্চ সাতক্ষীরা
প্রেসক্লাবে একটি সংবাদ সম্মেলনে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যে ও ভিত্তিহীন তথ্য
উপস্থপান করেছে। সেখানে ফনুর দেয়া বক্তব্য বানোয়াট ও উদ্দেশ্য প্রনোদিত।
আমি তার বক্তব্যের তীব্র নিন্দা প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
তিনি মৃগীডাঙ্গা গ্রামের নুরুল আমিন ফনুর অত্যাচার ও নির্যাতন থেকে নিজে
ও পরিবারের সদস্যদের রক্ষা করতে এবং তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের
দাবিতে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের
জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেন।