বোয়ালমারীতে শিক্ষকের অস্ত্রের কোপে স্বামী-স্ত্রী গুরুতর আহত

4

জাতীয় : ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার শেখর ইউনিয়নের বাজিদাদপুর গ্রামে শিক্ষকের অস্ত্রের কোপে স্বামী-স্ত্রী মারাত্মক জখম হয়েছে। তারা বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় অসিম মন্ডলের ছেলে রথিন মন্ডল (২৮) বাদি হয়ে ওই শিক্ষকসহ ৬ জনের নামে বোয়ালমারী থানায় এজাহার দিয়েছে।
ওই শিক্ষক সুমন বালা অরফে রমেশ বাজিদাদপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করেন। মঙ্গলবার (৯ মার্চ)
সরেজমিনে গিয়ে জানা যায় গত বুধবার বাজিদাদপুর গ্রামের অসিম মন্ডল (৫৮), তাঁর ঘরের সাথে নারিকেল গাছে ডাব পাড়ার জন্য তার ছেলে রথিন মন্ডলকে গাছে উঠায়। ডাব পাড়ার সময় প্রতিবেশি সুমন বালা তার ঘরের উপরে ডাব পড়েছে বলে অকর্থ ভাষায় গালি গালাজ করে। এ সময় রথিন মন্ডলের বাবা অসিম মন্ডল সুমন বালাকে গালি গালাজ করতে নিষেধ করে। কথা কাটা কাটির এক পর্যায় সুমন বালা ( ৩৮) তার ভাই ভক্ত বালা (৩২) মিথুন বালা ( ২৮) গোপাল বালা ( ৩৫) দেশীয় অস্ত্র লাঠি সোঠা নিয়ে তাদের উপরে হামলা করে। তাদের দেশীয় অস্ত্রের কোপে অসিম মন্ডল (৫৮) তার স্ত্রী নমিতা মন্ডল (৪৪) মারাত্মক জখম হয়। তাদেরকে ঠেকাতে গিয়ে নুপুর মন্ডল (৩০) আলোতি মন্ডল (৬১) ও আহত হয়। প্রতিবেশিরা অসিম মন্ডল ও নমিতা মন্ডলকে উদ্ধার করে বোয়ালমারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তাদেরকে ভর্তি করা হয়। এ ব্যাপারে শিক্ষক সুমন বালা বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সত্য নয়।