আদালতে মামলা ঝুলছে ১০ এমপির বিরুদ্ধে

5

জাতীয়: দুর্নীতি, অনিয়মসহ নানা অভিযোগে অন্তত ১০ জন এমপির বিরুদ্ধে আদালতে মামলা ঝুলছে। এছাড়া সাবেক ও বর্তমান বেশ কয়েকজন এমপির বিরুদ্ধে চলছে দুর্নীতির অনুসন্ধান।১ কোটি ৫৯ লাখ ৭৭৮ হাজার টাকার অবৈধ সম্পদ এবং ৮৯ লাখ ২৭ হাজার টাকার সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগে মামলা হয়েছে বগুড়া-২ আসনের জাতীয়পার্টির এমপি শরিফুল ইসলাম জিন্নাহ। ২০১৯ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর সম্পদ বিবরণী দাখিল করতে দুদক নোটিশ দিলেও জমা দেননি তিনি। মামলার পর গ্রেফতার এড়াতে হাইকোর্ট থেকে জামিনে নিয়েছেন জিন্নাহ।এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর কয়েকগুন সম্পত্তির মালিক হয়েছেন বগুড়া -৭ আসনের এমপি রেজাউল করিম। অভিযোগ রয়েছে অবৈধ ইটভাটার মালিকদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে ৩৪ লাখ টাকা দিয়ে গাড়ি কেনার। বিএনপির সমর্থনে এমপি নির্বাচিত হন রেজাউল।তদন্ত চলছে সংরক্ষিত আসনের এমপি সেলিনা ইসলামের বিরুদ্ধেও। এই এমপি দম্পত্তির বিরুদ্ধে অর্থপাচার ও দুর্নীতির মামলার হওয়ার পর জামিন নিয়েছেন সেলিনা ইসলাম ও তার মেয়ে ওয়াফা ইসলাম। আর কুয়েতের আদালতে ৪ বছরের দণ্ড হওয়ায় পাপুলের এমপি পদ মাস খানেক আগে বাতিল হয়েছে। পাপুল ও সেলিনার বিরুদ্ধে এখন পর্যন্ত প্রায় ১৫০ কোটি টাকা অবৈধ লেনদেনের তথ্য মিলেছে।

নাটোর-১ আসনের এমপি শহিদুল ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা চলছে গঠনতন্ত্র বহির্ভুত পন্থায় দলীয় কমিটি গঠন করার। এমপি শহিদুলসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলাটি করেন লালপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি । মামলার পর কারণ দর্শানোর নোটিশও দিয়েছেন আদালত।এছাড়া বিএনপি-আওয়ামী লীগ অন্যান্যদল ও স্বতন্ত্র মিলে সাবেক ও বর্তমান অন্তত অর্ধশতাধিক এমপির বিরুদ্ধে অনিয়মের তদন্ত চলছে। এরমধ্যে বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে তদন্ত শেষ পর্যায়ে রয়েছে।