গুজব ছড়িয়ে দেবহাটাকে অস্থিতিশীল করার অপচেষ্টা, আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি

3
সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: একের পর এক গুজব ছড়িয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করার পাশাপাশি শান্ত দেবহাটাকে অশান্ত করার অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে সরকার বিরোধী একটি চক্র। সময় সুযোগ কাজে লাগিয়ে মিথ্যা তথ্য প্রচার করে মানুষকে বিপদগামীতে পিছিয়ে নেই তারা। এমনকি মানুষের সরলতাকে কাজে লাগিয়ে সমাজে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতেও থেমে নেই ঐ চক্র। সম্প্রতি “দেবহাটার বিভিন্ন বাজারে রূপচাঁদা নামে বিক্রয় হচ্ছে নিষিদ্ধ পিরানহা মাছ” এমন গুজব ছড়িয়ে মাছের বাজারও ব্যাপক অস্থিতিশীল করে তুলেছিল তারা। এরপর গবাদি পশুর খুরা রোগের ব্যাপক মহামারি লেগেছে বলেও ভুল তথ্য প্রচার করে ঐ চক্রের সদস্যরা। গত ১২ মার্চ পারুলিয়ায় “অলৌকিকভাবে গাছে দেখা যাচ্ছে শতশত সাপ, দেখতে হাজার হাজার মানুষ ভীড় জমাচ্ছে” বলে ব্যাপক চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রচার করে মানুষকে বিভ্রান্তীকার পরিবেশের দিকে ঠেলে দিয়েছে তারা। আর এগুজবে সাতক্ষীরার জেলার বিভিন্ন প্রান্ত এমনকি যশোর, খুলনা এলাকা থেকেও মানুষ এসে মানুষ ভীড় জমাচ্ছে। বিষয়টি জেনে ১৩ মার্চ সকালে দেবহাটা থানার অফিসার ইনচার্জ বিপ্লব কুমার সাহার নেতৃত্বে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট সেখানে হাজির হয়ে সাপের গুজব বিষয়টি নিয়ে সাধারণ মানুষের সাথে কথা বলেন। এদিকে সাধারণ মানুষের অনুভূতি নিয়ে একের পর এক ভ্রান্ত ধারনা ছড়ানোর বিষয়ে বিভিন্ন এলাকায় অনুসন্ধান করে উঠে এসেছে ভিন্ন তথ্য। নিজেদের জাহির করতে এবং সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড থমকে দিতে মিথ্য গুজব ছড়িয়ে বেড়াচ্ছেন তারা। যা সামাজিক অপরাধ এবং আইনশৃঙ্খলার পরিপন্থি। একের পর এক এমন মিথ্যা ও ভীত্তিহীন গুজব রটনাকারী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বিভিন্ন মানুষ প্রশাসনের সহযোগীতা কামনা করেছেন। দেবহাটা উপজেলা সিনিয়র মৎস্য অফিসার বদরুজ্জামান জানান, দেবহাটায় নিষিদ্ধ পিরানহা মাছ বিক্রির বিষয় শুনে কোন সত্যতা পাইনি। দেবহাটা উপজেলা প্রাণী সম্পাদ অফিসার তহিদুর রহমান জানান, দেবহাটায় এখনো খুরা রোগের মহামারি কোন তথ্য পাওয়া যায়নি। তবে আমাদের ইউনিটের সদস্যরা বিষয়টি নিয়ে কাজ করছে। দেবহাটা প্রেসক্লাবের সভাপতি আব্দুর রব লিটু জানান, যেকোন মিথ্যা তথ্য প্রচার করা অপরাধ। যে বা যারা মিথ্যা তথ্য প্রচার করেন তারা কিন্তু আইনের চোখে অপরাধ করছেন। তাই মিথ্যা তথ্য না ছড়িয়ে সঠিত তথ্য প্রদানে সকলের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি। দেবহাটা থানার অফিসার ইনচার্জ বিপ্লব কুমার সাহা জানান, সাপের বিষয় শুনে ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করেছি। এটি নিছক একটি গুজব। বিষয়টি যারা মিথ্যা গুজব ছড়িয়ে বেড়াচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া যাবে।