জামাইয়ের ও’পরই শাশুড়ির আস্থা

11

বিনোদন: টলিউডের আলোচিত তারকা দম্পতি রাজ চ’ক্রবর্তী ও শুভশ্রী গাঙ্গু’লি। কিছুদিন আগে পশ্চিমবঙ্গে ক্ষ’মতাসীন দল তৃণমূ’লে যোগ দিয়েছেন পরিচালক রাজ চ’ক্রবর্তী। আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে বারাকপুর আসন থেকে তৃণমূ’লের হয়ে ভোটে লড়ছেন তিনি। নির্বাচনে রাজ চ’ক্রবর্তীর বিজয় নিয়ে শতভাগ আত্মবিশ্বাসী তার শাশুড়ি বীণাদেবী।পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপর হা’মলার প্র’তিবাদে বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) বর্ধমানের বাজেপ্রতাপপুরে পথ অ’বরোধ করেন তৃণমূ’ল সমর্থকরা। এই কর্মসূচিতে যোগ দেন শুভশ্রীর বাবা দেবপ্রসাদ গঙ্গোপাধ্যায় ও মা বীণাদেবী। এ সময় রাজের শাশুড়ি বলেন—‘রাজ জিতবেই আমি শতভাগ নিশ্চিত।’

বারাকপুরের প্রার্থী হতে পেরে খুশি রাজ চ’ক্রবর্তী। প্রচারও শুরু করেছেন তিনি। এ নির্মাতা বলেন—‘এই এলাকায় আমার বেড়ে ওঠা। বারাকপুরের প্রতিটি অলিগলি আমার চেনা।’

২০১৬ সালে ‘অভিমান’ সিনেমার শুটিং সেটে রাজ-শুভশ্রীর প্রেমের সূত্রপাত। ২০১৮ সালের ৬ মার্চ শুভশ্রীর স’ঙ্গে বাগদান সারেন রাজ চ’ক্রবর্তী। মে মাসে বাওয়ালি রাজবাড়িতে সাত পাকে বাঁ’ধা পড়েন দুই তারকা। গত বছর তাদের ঘর আলো করে আসে পুত্র যুভান

মেক-আপ রুমে গন্ডোগোল, রেগে শ্রুতি দাসের চুল কাটতে যান সহ অভিনেত্রী! ভাইরাল ভিডিও

অভিনেত্রী শ্রুতি দাস তাঁকে নিশ্চয়ই চেনেন সবাই। জি-বাংলা খ্যাত ‘ত্রিনয়নী’ ধারাবাহিকের মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেই টলিউড অভিনয় জগতে তাঁর অভিষেক হয়। শোনা যায়, অভিনয়কে ক্যারিয়ার করতেই সাহস নিয়ে কাটোয়া থেকে কলকাতায় এসেছিলেন পড়াশোনা করতে তিনি। সেই সঙ্গে মডেলিং ছিল স্বপ্ন। কিন্তু কে জানত প্রথম অডিশনেই তিনি পেয়ে যাবেন অভিনয়ের সুযোগ।মাত্র কয়েকদিনের মধ্যেই তাঁর দক্ষ অভিনয় জয় করে নেয় তাঁর সকল অনুরাগীর মন। তারপর থেকে তাঁকে আর পিছু ফিরে দেখতে হয়নি। তবে লকডাউনের মধ্যেই তাঁর ‘ত্রিনয়নী’ ধারাবাহিকটি শেষ হয়ে যায়।কিন্তু তারপরেও একটুও কমেনি শ্রুতির জনপ্রিয়তা। তবে তাঁর অভিনয়ে দর্শকদের মন কাড়লেও তাঁর গায়ের কালো রং ও সৌন্দর্য্যের দিকে দিয়ে মাঝে মাঝেই নানারকম বিতর্কের মুখে পড়তে হয়। কিছুদিন আগেই তাঁকে গায়ের রং এর জন্য ‘চাকরানী, কাজের মাসি, নায়িকার চরিত্রে অভিনয় করা তাঁকে মানায় না’ নানারকম টোনটিপ্পনী শুনতে হয়েছিল দর্শকমহল থেকে।কিন্তু তিনি এতে হেরে যাননি, সঠিক জবাব দিয়ে নিজেকে অভিনয়ের জগতে বারবার প্রমাণ করেছেন। যদিও রঙে নয় মানুষের বিচার হয় দক্ষতায়। মাথা ভর্তি লম্বা ঘন চুলের শ্রুতি রাতের ঘুম ওড়াতে পারেন যে কোনও কারও।

শ্রুতি সোশ্যাল মিডিয়াতেও বেশ অ্যাক্টিভ। নানা রকম কিছু পোস্ট করতে দেখা যায় তাঁকে। কখনও গান গাইছেন, আবার কখনও নাচের ভিডিও পোস্ট করছেন।

ইতিমধ্যে তিনি নতুন ধারাবাহিকে মুখ্য, এবং প্রতিবাদী চরিত্রে রয়েছেন। স্টার জলসা খ্যাত ‘দেশের মাটি’ ধারাবাহিক একপ্রকার প্রধান চরিত্রেই তিনি অভিনয় করছেন। মাত্র কয়েকদিন এই ধারাবাহিকের বয়সেই এই ধারাবাহিক জনপ্রিয়তা পেয়েছে অনেকটাই। সম্প্রতি ‘দেশের মাটি’র মেক-আপ রুম থেকেই একটি মজার ভিডিও শেয়ার করেছেন তিনি, সহ অভিনেত্রী শম্পা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে।ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, সহ অভিনেত্রীর সঙ্গে চুটিয়ে আড্ডা দিচ্ছেন তিনি। সেখানে শ্রুতি নিজের চুল নিয়ে কথোপকথন করছেন সহ অভিনেত্রীর সঙ্গে, বলছেন, ‘আমার চুলটা খুব বড় কেটে ফেলি? শম্পা বলছেন, হ্যাঁ কেটে ফেল।তারপরেই শ্রুতি বলছেন তাহলে বেনুনি করবো কি করে? এত কষ্ট করে চুলটা বড় করলাম কেটে ফেলবো? এবার শম্পা বলছেন, তাহলে কাটিস না। এই হ্যাঁ, না করতে করতেই বিরক্ত হয়ে যান শম্পা।একটা কাঁচি বার করে প্রায় এক প্রকার জোর করেই কেটে ফেলতে চান শ্রুতির চুল। যদিও শেষ পর্যন্ত রক্ষা পায় শ্রুতির চুল।’ নিছকই এটি একটি মজার ভিডিও ছিল, রীতিমতো নাটক করেই করেছেন তিনি এই ভিডিও। এই ভিডিওটি শ্রুতি ইনস্টাতে শেয়ার করা মাত্রই বহু পছন্দের সংখ্যা কুড়িয়েছে