উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পিসিআর ল্যাব ও চিকিৎসক সংকট দূরকরণের দাবি

2
এসএম বাচ্চু,তালা: করোনা ব্যবস্থাপনা অধিকতর সহজ ও দ্রুত করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আরটি-পিসিআর ল্যাব চালু করার দাবি জানিয়েছেন নাগরিক কমিটিসহ শুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ। প্রকাশ,গত বছর এলাকার মানুষের জোরালো দাবির প্রেক্ষিতে সাতক্ষীরার তালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা পরীক্ষার জন্য আরটি-পিসিআর ল্যাব স্থাপন করা হয়। কিন্তু ল্যাবটি অদ্যাবধি চালু করা হয়নি। সম্প্রতি দ্বিতীয় পর্যায়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ার শঙ্কায় এলাকাবাসীর মাঝে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা বেড়ে চলেছে। আরটি-পিসিআর ল্যাব চালু না করায় করোনাভাইরাস পরীক্ষা নিয়ে ভোগান্তির শিকার হচ্ছে শত শত মানুষ। পিসিআর ল্যাব চালু হলে বেশি সংখ্যক মানুষ পরীক্ষার আওতায় আসবে। তখন রোগ প্রতিরোধের ব্যবস্থাটাও আরো সুন্দরভাবে প্রতিরোধ করা সম্ভব হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন। তাল উপজেলাসহ পাশর্^বর্তী এলাকায় করোনাভাইরাস পজিটিভ অনেকেই থাকলেও পরীক্ষা করার সুযোগ তারা পাচ্ছে না। খুলান ও সাতক্ষীরা থেকে নমুনা পরীক্ষা করিয়ে আনতে হয়। এ কারণে মানুষের আগ্রহটাও অনেক কম। এছাড়া এলাকায় কতগুলা করোনা রোগী আছে সেটাও জানা সম্ভব হচ্ছেনা। এরকম একটা অসচেতনতার মধ্যে আছি আমরা। ইতিমধ্যে করোনার ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে। তালা হাসপাতালের ল্যাবটি চালু করা হলে ভালো একটা ফলাফল বের হবে।এছাড়া টেস্ট কম হওয়া ও রিপোর্ট পেতে বিলম্ব হওয়ার কারণে করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীকে সঠিক সময়ে শনাক্ত করে চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করা যাচ্ছে না। একই সাথে দীর্ঘদিন তালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসক সংকট রয়েছে। হাসপাতালে ৩৩ জন চিকিৎসকের জায়গায় কর্মরত আছেন মাত্র ১০ জন চিকিৎসক। এছাড়া হাসপাতালের কোন পরিচ্ছন কর্মী নেই। রয়েছে বিভিন্ন পদে জনবল সংকট। তাই আরটি- পিসিআর ল্যাব চালু করার পাশাপাশি হাসপাতালে দ্রুত চিকিৎসকসহ বিভিন্ন শূন্যপদে জনবল নিয়োগের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট জোরালো দাবী জানানো হয়।