সাতক্ষীরায় করোনায় সামাজিক দুরুত্ব মানছে না বেশিরভাগ মানুষ

5

ডেস্ক রিপোর্ট: সাতক্ষীরায় যেভাবে লকডাউন চলার কথা সে ভাবে চলেছেনা। সচেতনতা নেই মানুষের মাঝে।তবে কিছুটা রয়েছে প্রশাসনিক তৎপরতা।১ম দিন থেকে এখনো পর্যন্ত প্রতিদিন চলছে মোবাইল কোর্টের অভিযান।দেওয়া হচ্ছে মামলা,করা হচ্ছে জরিমানা। তারপরে ও সচেতনতা ফিরছেনা মানুষের মধ্যে।সাতক্ষীরা শহরের বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে সাধারণ মানুষের ভিড় দেখা গেছে। দুরপাল্লার পরিবহন ও স্থানীয় রুটে কোন যানবাহন চলাচল করতে দেখা যায়নি। তবে চলছে ট্রাক মাহিন্দ্রা, ইজিবাইক, ব্যাটারিচালিত ভ্যানসহ ব্যক্তি মালিকানাধীন প্রাইভেটকার। এছাড়া দোকান-পাট খোলা রয়েছে। তবে কাঁচা বাজারের মধ্যে অধিকাংশ মানুষ স্বাস্থ্যবিধি মানছেননা। এদিকে সাতক্ষীরা বড় বাজারের স্থান পরিবর্তন করে নেওয়া হয়েছে পিটিআই মাঠে। তাছাড়া মাস্ক পরিধানে অনেকেরই অনীহা রয়েছে। তবে প্রশাসনিক তৎপরতা লক্ষ্য করা গেছে।এদিকে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাহিরে না যাওয়ার কথা বলেছেন জেলা সিভিল সার্জন ডা:হুসাইন সাফায়াত।জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল জানান, করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় খুব শক্ত অবস্থানে রয়েছে।মাস্ক ছাড়া কেউ বাহিরে বের হলে তাকে ২ হাজার থেকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। প্রতিদিন ৫০ হাজার থেকে প্রায় ২ লক্ষ টাকা মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে জরিমানা করা হচ্ছে। সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত দোকানপাট খোলা রাখার কথা বলা হয়েছে। করোনা মোকাবেলায় সব ধরনের ব্যবস্থা নিয়েছে জেলা প্রশাসন।অন্যদিকে জেলা সিভিল সার্জন সূত্রে জানা গেছে, করোনায় সাতক্ষীরা জেলায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে এক জন।করোনার উপসর্গ নিয়ে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজে ভর্তি রয়েছে ৩৯ জন। করোনায় এ পর্যন্ত আক্রান্ত ১ হাজার ৩শ ৮০ জন।এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৩৬ জন।সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ১শ ৩৯ জন। করোনার উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু হয়েছে ১শ ৮৯ জন। কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে ৭হাজার ৮শ ৭৭ জন।