‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ নাটকের তৃতীয় সিজনের শেষ,বেঁচে থাকলে ব্যাচেলর পয়েন্টের কে কিভাবে আছে সেটা দেখাবোই: অমি

47

বিনোদন ডেস্কঃ নাটকীয় ঘটনার মধ্য দিয়ে সমাপ্তি টানা হলো আলোচিত ও তুমুল দর্শকপ্রিয় ধারাবাহিক ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ নাটকের তৃতীয় সিজনের। দর্শকপ্রিয়তার তুঙ্গে থাকা অবস্থাতেই নাটকটির ইতি টানা হলো। বিষয়টি নিয়ে মন খারাপ দর্শকদের। মন খরাপের হাওয়া বইছে ব্যাচেলর পয়েন্ট নাটকের টিমের সদস্যদের মাঝেও। এই মন খারাপের সময়ে নাটকটির নির্মাতা কাজল আরেফিন অমি সস্থির কথা শোনালেন। জানালেন, নাটকটির সিজন ফোর নিয়ে আপাতত কোনো পরিকল্পনা না থাকলেও ব্যাচেলর পয়েন্টের সদস্যরা কে কোথায় থাকবেন বা আছেন সেটা দেখানের পরিকল্পনা আছে তার। অমি বলেন, ‘যদি আমি সুস্থভাবে বেঁচে থাকি ব্যাচেলর পয়েন্ট নাটকের কে কোথায় কিভাবে আছেন সেটা দেখাবোই। সেটা যে কোনো প্লাটফর্মে হতে পারে। দীর্ঘ সময়ের পরও হতে পারে। তবে আমি জিবিত থাকলে দর্শকদের সামনে প্রতিটি সদস্যের শেষ অবস্থা নিয়ে হাজির হবোই।’শেষ পর্বে দেখা গেছে, শুভ আর শিমুলের ওপর হামলার প্রতিশোধ নেয় কাবিলা। পুলিশের হাতে গ্রেফতার হন তিনি। তার সঙ্গে থানায় দেখা করতে ছুটে যান শুভ। মাফ চেয়ে নেন আগের ভুলের জন্য। শুরু হয় কাবিলাকে ছাড়িয়ে আনার মিশন। যে নাটক দেখে এতোদিন দর্শকরা হেসেছেন শেষ পর্বে সেই নাটক দেখে দর্শকদের হৃদয়ে হয়েছে হাহাকার ছুয়ে গেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সেটা প্রকাশ করছেন তারা। দুঃখভারাক্রান্ত নাটকটির পুরোটিম। অমি জানালেন, ‌’নাটকটির শেষ দিনের শুটিংয়ে আমরা কোনো কথা বলতে পারছিলাম না। প্রতিটি দৃশ্যের শুটিংয়ের মাঝেই কথা বলতে বলতে আবেগি হয়ে পড়ছিলাম সবাই। চোখে জল নিয়ে শেষ দৃশ্যের শুটিং আমাদের করতে হয়েছে।”ব্যাচেলর পয়েন্ট’ নাকটটির সমাপ্তি টানার আগ পর্যন্ত দর্শকদের কাছে তুমুল জনপ্রিয়তার তালিকাতেই ছিলো। পরিচালক জানালেন এটাই তাদের প্রাপ্তি। টানা তিন সিজন জনপ্রিয়তা ধরে রেখে সেই জনপ্রিয়তা থাকা অবস্থাতেই নাটকটির ইতি টানা একটা ভাগ্যের ব্যাপার বলেই মন্তব্য তার। অমি বলেন, ‘দর্শকদের ভালোবাসাই নাটকটির বড় প্রাপ্তি। নাটকটির শেষ করায় দর্শকরা অনেক কষ্ট পাচ্ছেন। কারণ তারাও ব্যাচেলর পয়েন্টের পরিবার। নাটকটি শেষ হওয়ায় অনেকে আমাকে হুমকি দিচ্ছেন। অনুরোধ করছেন সিজন ফোর নির্মাণের। নির্মাতা হিসেবে এটাই আমার প্রাপ্তির জায়গা। দর্শকরা ভালোবাসা থেকেই হুমকি দিচ্ছেন, অনুরোধ করছেন। তবে দর্শকদের প্রতি সম্মান রেখেই জানাচ্ছি, নাটকটি যেনো তাদের মধ্যে একি ঘেয়েমির কারণ না হয়ে আসে সে চেষ্টা আমরা সব সময়ে করেছি। শেষ করার পর বুঝতে পেরেছি এ ক্ষেত্রে আমরা সফল। নাটকটিতে এক ঘেয়েমি আসার আগেই শেষ করতে পেরেছি।’সিজন থ্রিতে ব্যাচেলর হয়ে বাসায় থাকা বন্ধুদের গল্প তুলে ধরা হয়েছে নাটকটিতে। এই সিজনের বিদায় নিয়েছে তিনটি জনপ্রিয় চরিত্র। নেহাল, আরেফিন ও হাবু ভাই। পাশাপাশি যোগ হয়েছিলো নতুন চরিত্রও। শেষ পর্বে সাসপেন্স রেখেই শেষ হলো তৃতীয় সিজন। মোশনরক এন্টারটেইনমেন্ট ব্যানারে নাটকটি প্রযোজনা করেছে ধ্রুব টিভি। এর বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন মিশু সাব্বির, মারজুক রাসেল, তৌসিফ মাহবুব, চাষি আলম, শামীম হাসান সরকার, জিয়াউল হক পলাশ, মুসাফির শোয়েব, মনিরা মিঠু সাবিলা নূর, সানজানা সরকার রিয়া, শিমুলসহ অনেকেই।