বৈশাখের শুভেচছা জানালেন খুলনা আ’লীগ

4

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাঙালির চিরায়ত সংস্কৃতি ও ইতিহাস বাংলা নববর্ষ। বছর ঘুরে বাঙালি দ্বারে ফিরে এসেছে বৈশাখ। এই পহেলা বৈশাখকে ঘিরে বাঙালি চিরায়ত সাংস্কৃতি ঐতিহ্যকে বিশ্বের সামনে তুলে ধরতে নানান সাজে সাঝবে বাংলার বাঙালিরা। নতুন বছরকে স্বাগত জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ।বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, বাঙালি জাতীয়তাবাদকে টিকিয়ে রাখতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছাত্রজীবন থেকে ঔপনিবেশিক শক্তির বিরুদ্ধে আন্দোলন করেছেন। তার নেতৃত্বে বাঙালি জাতীয়তাবাদের আন্দোলন গড়ে উঠেছিলো। সেই থেকেই বাঙালির ইতিহাস ঐতিহ্য সারা বিশ্বে ধীরে ধীরে ছড়িয়ে পড়তে থাকলো। এই বাঙালি জাতীয়তাকে বিভিন্ন সময়ে নানা ভাবে ধ্বংস করার অপচেষ্টা করেছে। কিন্তু বাঙালির সচেতনতা এবং বাঙালিত্বের জাগরনে কোন অপশক্তি বাঙালির সামনে দাড়াতে পারেনি। বাঙালি যেমন তার ইতিহাস ঐতিহ্য আর অধিকারকে টিকিয়ে রাখতে সকল ভেদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আন্দোলনের মাধ্যমে ফিরিয়ে এনেছে। ওই ষড়যন্ত্রকারীরা যখন হারতে বসেছে তখন তারা অন্য কৌশল করে দেশের নিরবিচ্ছিন্ন উন্নয়নকে বাধাগ্রস্থ করতে চেষ্টা করেছে। সেকারনেই দেশ ও জাতি তথা আগামী প্রজন্মের স্বার্থে সকল ভেদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে উন্নয়নের কাজে এগিয়ে আসতে হবে।সকল জরাজীর্ণতাকে মুছে ফেলে সকল নতুনকে স্বাগত জানিয়েছেন শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান এমপি, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সিটি মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ নির্বাহী সদস্য সেখ সালাহ উদ্দিন জুয়েল এমপি, খুলনা জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শেখ হারুনুর রশীদ, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা, খুলনা জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. সুজিত কুমার অধিকারী।