করোনা টিকার ১ম ডোজ সাময়িকভাবে বন্ধ ঘোষণা

5

লিংক বিডি ২৪ ডেস্ক: প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে চলমান টিকা কার্যক্রম কর্মসূচির প্রথম ডোজ পরবর্তী নির্দেশ দেওয়া পর্যন্ত সোমবার (২৬ এপ্রিল) থেকে বন্ধ ঘোষণা করেছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।বোরবার (২৫ এপ্রিল) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের লাইন ডিরেক্টর ও কেভিড-১৯ ভ্যাকসিন ব্যবস্থাপনা টাস্কফোর্স কমিটির সদস্য সচিব ডা. মাে. শামসুল হক স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, উপর্যুক্ত বিষয়ের পরিপ্রেক্ষিতে জানানাে যাচ্ছে যে, আগামী ২৬ এপ্রিল থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত কোভিড-১৯ টিকাদান কার্যক্রমের ১ম ডোজের টিকা দেওয়া সাময়িকভাবে বন্ধ থাকবে। এ বিষয়ে আওতাধীন সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রগুলোকে যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য অনুরােধ করা হলো।

এদিকে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে আগামী মাসের প্রথম সপ্তাহেই ২১ লাখ ডোজ টিকা আসবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মো. খুরশীদ আলম।তিনি বলেন, মে মাসের শুরুতে ২১ লাখ ডোজ টিকা পাচ্ছি আমরা। তারমধ্যে এক লাখ ডোজ টিকা দেবে কোভ্যাক্স, আর বিশ লাখ ডোজ দেবে সেরাম ইনস্টিটিউট।

করোনা ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ শুরুর পর থেকে শনিবার (২৪ এপ্রিল) পর্যন্ত ২১ লাখ ৫৫ হাজার ২৯৬ জন টিকা নিয়েছেন। এর মধ্যে পুরুষ ১৪ লাখ ১৮ হাজার ৩০ জন এবং নারী ৭ লাখ ৩৭ হাজার ৩৬৬ জন।আর ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নিয়েছেন ৫৭ লাখ ৯৮ হাজার ৮৮০ জন। এর মধ্যে ৩৫ লাখ ৯৬ হাজার ৩০৬ জন পুরুষ এবং নারী ২২ লাখ ২ হাজার ৫৭৪ জন।

শনিবার স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে ১ লাখ ৮৭ হাজার ৩২১ জন টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন। এদের মধ্যে পুরুষ ১ লাখ ১৭ হাজার ৩৩ এবং নারী ৭০ হাজার ২৮৮ জন। আর প্রথম ডোজ নিয়েছেন ২০ হাজার ১৯৪ জন। এর মধ্যে পুরুষ ১২ হাজার ২৭০ এবং নারী ৭ হাজার ৯২৪ জন।

এ পর্যন্ত ঢাকা বিভাগে টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ৬ লাখ ৬২ হাজার ২৮৬ জন। এর মধ্যে ঢাকা মহানগরীতে ৩ লাখ ১৯ হাজার ৫৫২ জন। ঢাকা বিভাগে প্রথম ডোজ নিয়েছেন ১৮ লাখ ২৮ জন ও ঢাকা মহানগরীতে নিয়েছেন ৯ লাখ ১৫ হাজার ৫০৭ জন।ময়মনসিংহ বিভাগে দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ৯৮ হাজার ১৪৪ জন, প্রথম ডোজ নিয়েছেন ২ লাখ ৮৮ হাজার ২৬৩ জন।

চট্টগ্রাম বিভাগে দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ৪ লাখ ৭৫ হাজার ৬৮৩ জন, প্রথম ডোজ নিয়েছেন ১১ লাখ ৭৪ হাজার ১৫২ জন।রাজশাহী বিভাগে দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ২ লাখ ২৫ হাজার ৯৯৫ জন, প্রথম ডোজ নিয়েছেন ৬ লাখ ৬১ হাজার ৭৩৩ জন।রংপুর বিভাগে দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ১ লাখ ৯৬ হাজার ২৬৪ জন, প্রথম ডোজ নিয়েছেন ৫ লাখ ৯৫ হাজার ৪০৪ জন।

খুলনা বিভাগে দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ২ লাখ ৫৯ হাজার ৮৭৪ জন, প্রথম ডোজ নিয়েছেন ৭ লাখ ২৯ হাজার ৬৬ জন।বরিশাল বিভাগে দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ৯৭ হাজার ৭২০ জন, প্রথম ডোজ নিয়েছেন ২ লাখ ৫০ হাজার ২১ জন।সিলেট বিভাগে দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ১ লাখ ৩৯ হাজার ৩৩০ জন, প্রথম ডোজ নিয়েছেন ৩ লাখ ২১৩ জন।