লকডাউনে বাগেরহাটে ৬ দিনে ৭৫ মামলা, ৬৩ হাজার টাকা জরিমানা

2

বাগেরহাট প্রতিনিধি: লকডাউনে বাগেরহাটে স্বাস্থ্যবিধি না মানা ও বিভিন্ন আইন অমান্য করায় গেল ৬ দিনে বাগেরহাটে ৭৫জনকে ৬৩ হাজার ৫‘শ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। ২০ এপ্রিল থেকে ২৫ রাত পর্যন্ত ৬দিনে এই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে এই জরিমানা আদায় করা হয়।ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাস্ক বিতরণসহ নানা ধরনের সচেতনতামূলক কার্যক্রম চালু রয়েছে।এর আগে লকডাউন শুরু হলে ১৪ থেকে ১৯ এপ্রিল পর্যন্ত স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ১‘শ ৮৯ জনকে এক লক্ষ ৫১ হাজার ৮‘শ টাকা জরিমানা করেছিল ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এছাড়া রমজানে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরও অভিযান জোরদার করেছে। ১৪ এপ্র্রিল থেকে ২৬ এপ্রিল পর্যন্ত ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর বাগেরহাট জেলা কার্যালয়ের পক্ষ থেকে অভিযান চালিয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এই সময়ে খাওয়ার অনুপযোগী বেশকিছু পন্য নষ্ট করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, বাগেরহাটের সহকারি পরিচালক আব্দুল্লাহ আল ইমরান।

বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক আ.ন.ম ফয়জুল হক বলেন, লকডাউনের শুরু থেকে মানুষকে ঘরে রাখতে এবং স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে আমরা ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করছি। জনগনকে সচেতন করতে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাস্ক বিতরণ, মাইকিংসহ নানা ধরণের সচেতনতামূলক কার্যক্রম চালু রয়েছে। করোনায় কর্মহীনদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রয়েছে। নিম্ন আয়ের মানুষ ও বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষের মাঝে রমজানের শুভেচ্ছা উপহারও দেওয়া হয়েছে। সর্বোপরি করোনাকালীন সময়ে মানুষকে ঘরে রাখতে ও সুস্থ্য রাখতে জেলা প্রশাসন চেষ্টা করে যাচ্ছে। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি।