সাতক্ষীরায় করোনা পরিস্থিতিতে নিরাপদ আম বাজারজাতকরণ সময়সুচি নির্ধারন নিয়ে ভার্চয়ালের মাধ্যমে মতবিনিময় সভা

3

সাতক্ষীরা সদর প্রতিনিধি : সাতক্ষীরায় করোনা পরিস্থিতিতে নিরাপদ আম বাজারজাতকরণ সময়সুচি নির্ধারন নিয়ে ভার্চয়ালের মাধ্যমে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (২৭ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১০টায় সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে অতিরিক্ত জেলা (সার্বিক) মো. তানজিল্লুর রহমানের সভাপতিত্বে ভার্চুয়ালের মাধ্যমে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর থেকে সংযুক্ত হয়ে বক্তব্য রাখেন নিরাপদ আম বাজারজাতকরণ সময়সুচি বিষয়ে নির্ধারন বিষয়ক কমিটির সদস্য সচিব জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক কৃষিবিদ মো. নুরুল ইসলাম, সদর উপজেলা কৃষি অফিস প্রান্ত থেকে সদর উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ রফিকুল ইসলামসহ জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের কৃষি কর্মকর্তা, শহর কাচা ও পাকা মাল ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দ, আম চাষী ও আম ব্যবসায়ীরা।

এবছর বর্ষা না হওয়ায় খরার কারণে গতবছরের নির্ধারিত সময় থেকে ১ সপ্তাহ আগে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী আম ভাঙ্গার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। সাতক্ষীরায় করোনা পরিস্থিতিতে নিরাপদ আম বাজারজাতকরণ সময়সুচি নির্ধারন নিয়ে ভার্চুয়ালের মাধ্যমে আলোচনা করে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী ২০২১ সালে মুম্বাই, গোবিন্দভোগ, গোপালভোগ আগামজাত আম ১লা মে থেকে গাছ থেকে আম ভাঙ্গা যাবে, হিমসাগর আম ২১ মে থেকে ভাঙ্গা যাবে এবং ল্যাংড়া আম ১লা জুন থেকে গাছ থেকে ভাঙ্গা যাবে। সরকারি এই নির্দেশনা অমান্য করে নির্দিষ্ট সময়ের আগে আম গাছ থেকে পাড়া ও বাজারজাত করতে পারবেনা। এই নির্দেশনা অমান্যকারীদেরকে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে শাস্তি ও জরিমানা করা হবে।

এসময় সদর উপজেলা কৃষি অফিস প্রান্ত থেকে করোনা পরিস্থিতিতে নিরাপদ আম বাজারজাতকরণ সময়সুচি নির্ধারন নিয়ে ভার্চয়ালের মাধ্যমে আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা উপসহকারি কৃষি অফিসার রঘুজিৎ গুহ, অমল ব্যনার্জী, শহর কাচা ও পাকা মাল ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি কাজী কবিরুল হাসান বাদশা, সেক্রেটারী মো. আব্দুর রহিম বাবু, জয়েন্ট সেক্রেটারী রজব আলী খাঁ, সলিডারীডার সফল প্রকল্প প্রতিনিধি কামরুজ্জামান, আম চাষী এস.এম লিয়াকত হোসেন, মো. মনিরুল ইসলাম, মোকছেদ মোড়ল ও আবু ছাদেক প্রমুখ। এসময় সদর উপজেলার কৃষি কর্মকর্তা, আম চাষী ও আম ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন।